ইউএনওর উপর হামলার অভিযোগে দুজনকে রিমান্ড, এবং ডিবি-তে মামলা

আজ শনিবার বিকেল ৫টার দিকে গ্রেপ্তার দুই আসামি রং মিস্ত্রি নবিরুল ইসলাম ও সান্টু রায় দাসকে জেলা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শিশির কুমার বসুর আদালতে হাজির করা হয়। মামলার নতুন তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ইমাম জাফর অধিকতর তদন্তের জন্য তাঁদের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন জানান। আদালত ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। তবে আসামিপক্ষের কোনো আইনজীবী ছিলেন না। রিমান্ড মঞ্জুরের পর আদালত প্রাঙ্গণে সাংবাদিকদের কাছে ব্রিফ করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইমাম জাফর। তিনি বলেন, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মামলাটি ডিবি কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এই মামলায় দুজনের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইমাম জাফর বলেন, মামলার প্রধান আসাদুল ইসলামকে এখনো ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়নি। এর আগে গতকাল দিনাজপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) আনোয়ার হোসেন বলেন, ওই মামলার তদন্তে যাকেই প্রয়োজন হবে তাঁকেই জিজ্ঞাসাবাদ করবে পুলিশ।
এদিকে ওই মামলার দুই অন্যতম সন্দেহভাজন নবীরুল ইসলাম ও সান্টু কুমার বিশ্বাসকে সাত দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। দিনাজপুরের আমলি আদালতে নিয়ে পুলিশ তাঁদের ১০ দিনের রিমান্ড চাইলে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শিশির কুমার বসু সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত প্রধান সন্দেহভাজন আসাদুলকে আদালতে তোলা হয়নি।