কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

255

 হবিগঞ্জ পৌর এলাকার উমেদনগরে হেলেনা আক্তার নামে এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতের ভাই জানিয়েছেন একই এলাকার এক যুবকের সাথে মেয়েটির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই যুবক ও তার পরিবারের লোকজন হেলেনাকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রেখেছে বলে দাবি করেন তিনি।
গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর পর হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) অভিজিৎ রায়। হেলেনা উমেদগরের আরব আলীর মেয়ে। শচীন্দ্র ডিগ্রী কলেজে একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী ছিলেন তিনি।
মৃতের ভাই দুলাল মিয়া জানান, হেলেনা অত্যন্ত মেধাবী ছাত্রী ছিলেন। এক বছর পূর্বে প্রতিবেশী এক যুবকের সাথে মেয়েটির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হলে অন্তসত্ত্বা হয়ে পড়েন হেলেনা। পরবর্তীতে শহরের একটি ক্লিনিকে তার গর্ভপাত ঘটানো হয়। এরপর মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন তিনি।
তিনি আরো জানান, বিয়ের জন্য ওই যুবককে বার বার চাপ দিলেও তার পরিবার সম্মত হয়নি। এক পর্যায়ে যুবক ও তার পরিবারের লোকজন হেলেনাকে খুন করে বাড়ির পাশের একটি গাছে মরদেহ ঝুলিয়ে রেখেছ। পরে হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাসুক আলী জানান, ধারণা করা হচ্ছে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।