করোনায় বাংলাদেশের অবস্থান ২০ তম

381
coronavirus

করোনাভাইরাসের প্রকোপে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে গোটা বিশ্ব। উন্নত থেকে দুর্গত, সব জনপদে লাশের সারি ফেলে চলেছে এই ভাইরাস। সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে দেশে দেশে যেন প্রতিযোগিতা চলছে। একদিন এক দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্ত হয় তো, আরেকদিন আরেক দেশ ভাঙে সেই রেকর্ড। একদিন এক দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড হয় তো, আরেকদিন সেটা ছাপিয়ে যায় অন্য দেশ। করোনা সংক্রমণের শীর্ষ দেশগুলোকে এই প্রতিযোগিতার মুখে পড়তে হয়েছে।
করোনা ভাইরাসের সর্বশেষ পরিসংখ্যান জানার ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুসারে, সংক্রমণের দিক থেকে শীর্ষ ২০ দেশের তালিকায় ঢুকে গেছে বাংলাদেশ।
৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর শুরুর দিকে বাংলাদেশে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কম থাকলেও মে মাসের শেষ এবং জুনের শুরু থেকেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে উভয় সংখ্যা। গত তিনদিনে মৃত্যুর সংখ্যা ত্রিশের নিচে নামেনি। আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আড়াই হাজারের কম-বেশিই দেখা গেছে। এতো বিপুলসংখ্যক লোকের সংক্রমণ ও মৃত্যুই ওয়ার্ল্ডোমিটারের গ্রাফে শীর্ষ ২০-এ ঢুকিয়েছে বাংলাদেশকে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের গত শুক্রবারের সর্বশেষ বুলেটিন অনুসারে, দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯১। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৮২৮ জন। মারা গেছেন মোট ৮১১ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩০ জনের। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ৮০৪ জন। ওয়ার্ল্ডোমিটারের শুক্রবারের গ্রাফে এই চিত্রটিই তুলে ধরা হয়েছে।
ওয়েবসাইটটির তথ্যমতে, সারাবিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৭ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন তিন লাখ ৯৩ হাজারের বেশি। আর সুস্থ হয়েছেন প্রায় পৌনে ৩৩ লাখ রোগী।
৬০ হাজারের বেশি আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে তালিকায় বাংলাদেশ শুক্রবার পর্যন্ত ২০তম অবস্থানে থাকলেও কয়েকদিনের মধ্যেই গ্রাফের আরও উপরে উঠে যাওয়ার শঙ্কা স্পষ্ট। জুন শেষে তালিকায় বাংলাদেশ গ্রাফের কোন জায়গায় গিয়ে অবস্থান নেয় সেটাই এখন দেখার বিষয়।