রমযানের শেষ ১০ দিনের আমল

আজ ২৫ তম রমযান। আজ একটি ঐতিহাসিক দিন। কারন এদিনে মওনার যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল। উম্মাহাতুল মু‘মিনিন হযরত আয়েশা সিদ্দিকা (রাঃ)এর ইনতিকাল হয়ে ছিল আজকের এদিনে। চলিত ১০ দিনের যে কোনো বেজোড় রাতে শবেকদর হতে পারে বিধায় আমাদের সকলকে সতর্কতার সাথে সময় কাটাতে হবে। সৌভাগ্যবান ঐ ব্যক্তিরা যারা মহানবী (সঃ)এর সুন্নাত মোতাবেক রমযানের শেষ ১০ দিনের জন্য আল্লাহর ঘর মসজিদে এ‘তেকাফে বসতে পেরেছেন। আমরা নবীর উম্মত হয়ে এত ব্যস্ত যে উল্লেখিত সুন্নাত আদায়ে আমাদের কারো হাতে সময় নেই। আমরা অনেকেই নবীর জন্য জান দিয়ে দেব, কিন্তু নবীর সুন্নাত আদায়ের বেলায় শুন্যের কোটায়, এমনকি দাড়িখানাও রাখতে নারাজ। 
যেখানে রাসুল(সাঃ) বলেছেন ‘‘যদি কোনো ব্যক্তি তার দাড়ির মাঝে খুর লাগায় সে যেন আমার কলিজায় খুর লাগাল।’’ এর পরেও আমাদের হুশ আসেনা যে আমরা কোন নবীর উম্মত। এবার যারা এতেকাফে বসেছেন আপনাদের কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। যেমন একেবারে নিত্য প্রয়োজনীয় কোনো কাজ ছাড়া মসজিদের বাহিরে যাওয়া ঠিক হবেনা। মসজিদে বসে অযথা সময় নষ্ট না করা ভাল। পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত, তছবিহ তিলাওয়াত, নফল নামাজ বা দ্বিনী কোনো আলোচনার মধ্যে ব্যস্ত থাকা ভাল।